মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৩৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
মুন্সীগঞ্জে ভোলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতিকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে মানববন্ধন আবুল খায়ের স্টিলের উদ্যোগে টঙ্গীবাড়ী’তে গৃহনির্মাণ কর্মশালা টঙ্গীবাড়ীতে মতবিনিময় সভা অনুষ্টিত সিরাজদিখানে’র ইছাপুরা ইউনিয়ন পরিষদে বিট পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত  মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে রাস্তার উপর টানা অবৈধ ড্রেজারের পাইপ অপসারণ ধলেশ্বরী নদী’র তীর থেকে যুবকের মরদেহ উদ্ধার নৌ পুলিশের শ্রীনগরে বিধবা এক নারীর সাথে ইউনিয়ন বিএনপি নেতার অশ্লীল ফোনালাপ ফাঁস শ্রীনগরে ভোক্তা অধিকারের অভিযানে চারটি প্রতিষ্ঠানকে অর্থদন্ড  মুন্সীগঞ্জে ঢাকা-টচ্রগ্রাম মহাসড়কে পিকআপ ভ্যান ও ট্রাককে বাসের ধাক্কা, আহত-১৩  গজারিয়ায় মিম হত্যার সুষ্ঠু তদন্ত!  সামাজিক অবক্ষয় রোধে বিট পুলিশিং সভা
নোটিশ

মুন্সীগঞ্জ সংবাদ - প্রকাশক ও সম্পাদক - মোহাম্মদ আলী রুবেল    +৯৭১৫৫৭৭৪৯৬৬৮ - সত্যের পথে নির্ভীক মোরা - আমরা সদাসর্বদা সত্য প্রচার করি

 

টঙ্গিবাড়ীতে চিরকুট লিখে স্বর্ণ ব্যবসায়ীর আত্নহত্যা

মুন্সীগঞ্জ সংবাদ ডেক্স / ১৫৩ বার
আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৪ মার্চ, ২০২১

মো: তুষার আহাম্মেদ : মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী উপজেলার হাসাইল বাজারের স্বর্ন ব্যবসায়ী উত্তম শীল (৪০) একটি চিরকুট লিখে আত্নহত্যা করেছে।
আজ বুধবার (৩ মার্চ) বিকালে তার লাশ স্থাণীয় একটি শশ্মানে ময়নাতদন্ত শেষে পুড়ানো হয়েছে
এর আগে মঙ্গলবার হাসাইল বাজারে তার নিজ দোকানের আড়ার সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্নহত্যা করে সে। নিহত উত্তম হাসাইল গ্রামের রবি শীলের ছেলে।
হাসাইল বাজারের পার্শ্ববর্তী দোকানদারদের কাছ থেকে জানাযায়, মৃত্যুর দিন মঙ্গলবার উত্তমের দেখা মিলছিলোনা। পরে সন্ধ্যায় তার দোকানে আলো জ্বলতে দেখতে পেয়ে কিছু মানুষ দোকানের সামনে গিয়ে সাটারের নিচ দিয়ে উকি মেরে উত্তমের লাশ ঝুলুন্ত অবস্থায় দেখতে পায়। পরে সাথে সাথে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের জানালে তারা পুলিশের কাছে খবর দিলে মঙ্গলবার রাতে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।
সে সময় নিহত উত্তমের লুঙ্গির কোচরে সাদা কাগজে একটি চিরকুট দেখতে পায় এলাকাবাসী। পুলিশ স্থাণীয়দের সামনে চিরকুটটি খুললে স্থাণীয়রা দেখতে পায় চিরকুটের মধ্যে আমার মৃত্যুর জন্য রাসেল মেলকার দায়ী লিখা আছে। এ নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যর সৃষ্টি হয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যক্তি জানান, কিছুদিন পূর্বেও রাসেল মেলকারের সাথে উত্তম শীলের কথা কাটাকাটি হয়েছিলো।
এদিকে ঘটনার পর থেকে রাসেল মেলকারকে এলাকায় পাওয়া যাচ্ছেনা। রাসেল মেলকার একই গ্রামের মনু মেলকারের ছেলে।
এ ব্যাপারে রাসেল মেলকার জানান, আমার সাথে ব্যবসায়িক লেনদেন নিয়ে ২ দিন আগে উত্তমের কথা কাটাকাটি হয়। পরে কি কারনে আত্নহত্যা করেছে আমি জানিনা। নিহতের কাছে যে চিরকুট পাওয়া গেছে তার সাথে উত্তমের আগের হাতের লিখার কোন মিল নাই। আমাকে ফাঁসাতে অন্য কেউ চিরকুট লিখে লাশের লুঙ্গির কোচরে রেখে দিয়েছে।
এ ব্যাপারে মামলা তদ্ন্তকারী কর্মকর্তা টঙ্গিবাড়ী থানা এসআই জাহিদ বলেন মামলা তদন্তের স্বার্থে আমি কিছু বলতে যাচ্ছিনা।


এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com