সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৩২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
নোটিশ

মুন্সীগঞ্জ সংবাদ - প্রকাশক ও সম্পাদক - মোহাম্মদ আলী রুবেল    +৯৭১৫৫৭৭৪৯৬৬৮ - সত্যের পথে নির্ভীক মোরা - আমরা সদাসর্বদা সত্য প্রচার করি

 

সিরাজদিখানে পাওনা টাকা চাওয়ায় ইউপি সদস্যের মারধরে গৃহবধুর গর্ভপাত 

মুন্সীগঞ্জ সংবাদ ডেক্স / ১৪ বার
আপডেট সময় : শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১

তুষার আহাম্মেদ- মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে পাওনা টাকা চাওয়াকে কে কেন্দ্র করে মধ্যপাড়া ইউপি সদস্যের মারধরে ৩মাসের অন্তসত্বা গৃহবধুর গর্ভপাতরে অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার মধ্যপাড়া ইউনিয়নের মস্তফাগঞ্জ গ্রামে। নির্যাতনের শিকার গৃহবধূর নাম সুমা বেগম। সে শেরপুর জেলার সাপমারি গ্রামের সুলতানে স্ত্রী। এই ঘটনায় নির্যাতনের শিকার গৃহবধূর স্বামী সুতলান বাদী হয়ে সিরাজদিখান থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছে।
অভিযোগ ও ভুক্তভোগী সূত্রে জানাযায়, উত্তর মধ্যপাড়া গ্রামের ৪,৫ও৬ নং ওয়ার্ড ইউপি  সদস্য হাসি বেগমের স্বামী পান্নু খানের জমিতে সুলতান ও তার স্ত্রী সুমা বেগম ৪শ  ও ৩শ টাকার রোজে ধান কাটার কজ করে প্রায় বছরখাণেক  আগে। পান্নু খান তাদের ৩শাটা দেয় বাকি ৪শ টাকা না দেয়ায় সেই টাকা চাইতে যায় সুমা ইউপি সদস্য হাসি  বেগমের বাড়িতে।  সেখানে ইউপি সদস্যের সাথে হাসির বাক-বিতন্ডা হয়। গত মঙ্গলবার ইউপি সুমা ইউপি সদস্য হাসি বেগমের বাড়ির সামন দিয়ে হেটে গেলে হাসি বেগম তাকে এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করতে নিসেধ করে। সুমা তার প্রতিবাদ করেলে তাকে হাসি বগেম তাকে ধরে বাড়িতে নিয়ে যায়। এসমং ইউপি সদস্য হাসি বেগম তার স্বামী পানু খান (৫৫) ও ছেলে রনি খান (২৫) বেধরক মারধর করে ও দরি দিয়ে হাত পা বেধে রাখে। এতে ৩মাসের অন্তসত্বা সুমা বেগমের গর্ভপাত হয়েছে বলে অভিযোগে অভিযোগ করেন। এসময় সুমার ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা এসে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রেফার্ড করে। বর্তমানে সুমা বেগম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা গ্রহন করছে।
ইউপি সদস্য হাসি বেগম বলেন, আমাকে কায়েদিন থেকে সুমা গালিগালাজ করতেছিল তাই আমি সুমাকে কোমরে ধরে বাড়িতে নিয়ে আসি। পতে তাকে কায়েকটা থাপ্পর দেই। আমার স্বামী ও ছেতে সুমকে মারে নাই উলটো সুমা আমাকে মারধর করেছে। আমর গলা টিপে ধরেছ। এই বিষয়ে ঐদিনই স্থানিয়দের ডেকে বিচার করি এবং সুমা ও তার সামমির স্বাক্ষর রেখে দেই।
এ বিষয়ে সিরাজদিখান থানার ওসি (তদন্ত)  মোঃ আজগর হোসেন বলেন, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে আইন গত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com